প্রোগ্রামিংয়ের বলদ টু বস

প্রোগ্রামিংয়ের বলদ টু বস

226.95৳ 

-15%

আর মজা পায় তা অন্য যখনই লিখতে যায়, তখন

“প্রােগ্রামিংয়ের বলদ টু বস” বইটি কাদের জন্য যারা ভয়, কনফিউশন, ফাঁকিবাজি প্রােগ্রামিং শিখা শুরু করতে সাহস পায়না। কিংবা অল্পএকটু শিখে আর মজা পায় না। অথবা যখনই শিখতে যায়, তখনই প্রােগ্রামিংয়ের মাথা মুন্ডু কিছুই বুঝতে না পেরে লেজ গুটিয়ে পালায়। তাদেরকে মজায় মাজায়, আড্ডার ছলে প্রােগ্রামিং শিখানাে হয়েছে। যাতে চাকরির বাজারে, চান্দুদের মাজারে, অবহেলিতরা, বলদ থেকে ডাইরেক্ট বস হয়ে যেতে পারে। প্রােগ্রামিংয়ের পঞ্চরত্ন- ভেরিয়েবল, array, if-else, লুপ, ফাংশন সম্পর্কে ধারণা থাকলে কিংবা হাবলুদের জন্য প্রােগ্রামিং বইটি পড়া থাকলে, এই বইটা পড়তে মজা একটু বেশি লাগবে। তবে প্রােগ্রামিংয়ের পঞ্চরত্ন সম্পর্কে ভাল ধারণা না থাকলেও মজা পাওয়া যাবে। এই বইটির উদ্দেশ্য। সবচেয়ে সহজ ও ছােট রাস্তা দেখিয়ে, মিনিমাম যে জিনিসগুলাে শিখা দরকার সেগুলাে শিখিয়ে, বিগিনার লেভেলের প্রােগ্রামার বানিয়ে কনফিডেন্স বাড়িয়ে দেয়া। যাতে যে কেউ কিছুদিন প্রাকটিস করে প্রােগ্রামিংয়ের চাকরি বা ইন্টার্নের জন্য ইন্টারভিউ দিয়ে, অফার লেটার পেয়ে, বলদ থেকে বস হয়ে, দেখিয়ে দিতে পারে- সব বলদের চেষ্টাতেই বসগিরি লুকিয়ে আছে। বইয়ের ভূমিকা। এক সদস্য বিশিষ্ট বলদ তদন্ত কমিটির রিপাের্ট থেকে জানা যায়- বলদ তিন প্রকার। ফাঁকিবাজ বলদ, কনফিউজড বলদ ও চুপা বলদ। এসব বলা আড্ডা দেওয়া, ঘুরতে যাওয়া, প্রেম খোঁজা, এমনকি স্যারদের বাঁশ খাওয়ার মতাে কাজগুলাে নিষ্ঠার সাথে পালন করার পরেও পরীক্ষার খাতায় সামান্য কয়েকটা নম্বরের জন্য এদেরকে হাবলু, বলদ বা গাধা হিসেবে সম্মােধন করা হয়। 

বেশিরভাগ বলদরা বাইরে চালু ভাব ধরে রাখলেও তাদের ভিতরে থাকে- না পারার ভয়, সামর্থ্য নিয়ে সংশয়, ফাঁকিবাজির আশ্রয়। এরা প্রােগ্রামার হওয়ার স্বপ্ন দেখে, রুটিন বানিয়ে নাকে তেল দিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে, ছােটখাটো জিনিসে আটকে গেলে হতাশার বড়ি গিলে। কেউ কেউ আবার কয়েকদিন শিখে এক প্রােগ্রামিং ল্যাগুয়েজ, কয়েকদিন পর ধরে অন্য আরেক প্রােগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। তাতে না শিখে প্রােগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ, না শিখে প্রােগ্রামিং। তবে সব বলদই সুযােগ পেলে ছুটে যায় চা দোকানে। আড্ডা দিতে। সেজন্যই চা দোকানের আড্ডার ভাষা দিয়ে প্রােগ্রামিংকে উপস্থাপন করা হয়েছে এই বইতে। যাতে বলদেরাও পুচকা লেভেলের প্রােগ্রামার হিসেবে ফুল টাইম, পার্ট-টাইম বা ইন্টার্ন এ এপ্লাই করার জন্য যে জিনিসগুলা শিখা দরকার সে | জিনিসগুলা আড্ডাবাজি করতে করতে শিখে ফেলতে পারে। লুকিয়ে আছে বসগিরি সব বলদের অন্তরে ঝংকার মাহবুব

Availability: 99 in stock

226.95৳ 

Availability: 99 in stock

Add to cart
Buy Now

Product Description

আর মজা পায় তা অন্য যখনই লিখতে যায়, তখন

“প্রােগ্রামিংয়ের বলদ টু বস” বইটি কাদের জন্য যারা ভয়, কনফিউশন, ফাঁকিবাজি প্রােগ্রামিং শিখা শুরু করতে সাহস পায়না। কিংবা অল্পএকটু শিখে আর মজা পায় না। অথবা যখনই শিখতে যায়, তখনই প্রােগ্রামিংয়ের মাথা মুন্ডু কিছুই বুঝতে না পেরে লেজ গুটিয়ে পালায়। তাদেরকে মজায় মাজায়, আড্ডার ছলে প্রােগ্রামিং শিখানাে হয়েছে। যাতে চাকরির বাজারে, চান্দুদের মাজারে, অবহেলিতরা, বলদ থেকে ডাইরেক্ট বস হয়ে যেতে পারে। প্রােগ্রামিংয়ের পঞ্চরত্ন- ভেরিয়েবল, array, if-else, লুপ, ফাংশন সম্পর্কে ধারণা থাকলে কিংবা হাবলুদের জন্য প্রােগ্রামিং বইটি পড়া থাকলে, এই বইটা পড়তে মজা একটু বেশি লাগবে। তবে প্রােগ্রামিংয়ের পঞ্চরত্ন সম্পর্কে ভাল ধারণা না থাকলেও মজা পাওয়া যাবে। এই বইটির উদ্দেশ্য। সবচেয়ে সহজ ও ছােট রাস্তা দেখিয়ে, মিনিমাম যে জিনিসগুলাে শিখা দরকার সেগুলাে শিখিয়ে, বিগিনার লেভেলের প্রােগ্রামার বানিয়ে কনফিডেন্স বাড়িয়ে দেয়া। যাতে যে কেউ কিছুদিন প্রাকটিস করে প্রােগ্রামিংয়ের চাকরি বা ইন্টার্নের জন্য ইন্টারভিউ দিয়ে, অফার লেটার পেয়ে, বলদ থেকে বস হয়ে, দেখিয়ে দিতে পারে- সব বলদের চেষ্টাতেই বসগিরি লুকিয়ে আছে। বইয়ের ভূমিকা। এক সদস্য বিশিষ্ট বলদ তদন্ত কমিটির রিপাের্ট থেকে জানা যায়- বলদ তিন প্রকার। ফাঁকিবাজ বলদ, কনফিউজড বলদ ও চুপা বলদ। এসব বলা আড্ডা দেওয়া, ঘুরতে যাওয়া, প্রেম খোঁজা, এমনকি স্যারদের বাঁশ খাওয়ার মতাে কাজগুলাে নিষ্ঠার সাথে পালন করার পরেও পরীক্ষার খাতায় সামান্য কয়েকটা নম্বরের জন্য এদেরকে হাবলু, বলদ বা গাধা হিসেবে সম্মােধন করা হয়। 

বেশিরভাগ বলদরা বাইরে চালু ভাব ধরে রাখলেও তাদের ভিতরে থাকে- না পারার ভয়, সামর্থ্য নিয়ে সংশয়, ফাঁকিবাজির আশ্রয়। এরা প্রােগ্রামার হওয়ার স্বপ্ন দেখে, রুটিন বানিয়ে নাকে তেল দিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে, ছােটখাটো জিনিসে আটকে গেলে হতাশার বড়ি গিলে। কেউ কেউ আবার কয়েকদিন শিখে এক প্রােগ্রামিং ল্যাগুয়েজ, কয়েকদিন পর ধরে অন্য আরেক প্রােগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। তাতে না শিখে প্রােগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ, না শিখে প্রােগ্রামিং। তবে সব বলদই সুযােগ পেলে ছুটে যায় চা দোকানে। আড্ডা দিতে। সেজন্যই চা দোকানের আড্ডার ভাষা দিয়ে প্রােগ্রামিংকে উপস্থাপন করা হয়েছে এই বইতে। যাতে বলদেরাও পুচকা লেভেলের প্রােগ্রামার হিসেবে ফুল টাইম, পার্ট-টাইম বা ইন্টার্ন এ এপ্লাই করার জন্য যে জিনিসগুলা শিখা দরকার সে | জিনিসগুলা আড্ডাবাজি করতে করতে শিখে ফেলতে পারে। লুকিয়ে আছে বসগিরি সব বলদের অন্তরে ঝংকার মাহবুব

লিখেছেন

প্রকাশনী

আদর্শ

পৃষ্ঠা

127

প্রকাশকাল

1st publisher 2017

আইএসবিএন

9789849266044

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “প্রোগ্রামিংয়ের বলদ টু বস”

Your email address will not be published.