শিশিলিন কিশোর গোয়েন্দা: রেড ড্রাগন

শিশিলিন কিশোর গোয়েন্দা: রেড ড্রাগন

170.00৳ 

-15%

শিশির বুঝতেই পারেনি যে, রেড ড্রাগন এতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে। রেড ড্রাগনকে ফাঁদে ফেলতে গিয়ে নিজেই আটকা পড়ে গেছে রেড ড্রাগনের ফাঁদে। এখন হাত-পা বেঁধে তাকে ফেলে রাখা হয়েছে গােপন এক কক্ষের মধ্যে। আসলে কক্ষ নয়, বড় একটা কোল্ডস্টোরে। এই স্টোরের মধ্যে শুধু ইলিশ মাছ আর ইলিশ মাছ। ইলিশ মাছ বড় পছন্দের রেড ড্রাগনের। এরই মধ্যে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। এভাবে তাপমাত্রা কমলে একসময় জমে যাবে তার শরীর। তারপর নিশ্চিত মৃত্যু। এমনই চাচ্ছে রেড ড্রাগন। মৃত্যুর পর কী হবে তা আর ভাবতে চাচ্ছে না শিশির। এখন একমাত্র ভরসা লেলিন। লেলিন চেষ্টা করছে তাকে উদ্ধার করতে। কিন্তু যখন দেখল লেলিনও আটক হয়েছে রেড ড্রাগনের হাতে তখন একেবারেই হতাশ হয়ে পড়ল সে। হাত-পা বাঁধা লেলিন তার সামনে এখন। শীতে সে নিজে যেমন কাঁপছে, একইভাবে কাঁপছে লেলিনও। মুক্তির কিংবা পালানাের কোনাে সুযােগ নেই। বাইরে রেড ড্রাগন, সজাগ-সতর্ক। অপেক্ষা করছে তাদের মৃত্যু প্রহরের। এদিকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে আরও দ্রুত। মেঝেতে যে পানি ছিল তাও বরফে পরিণত হয়েছে। একটা হাত অবশ হয়ে আসছে। শক্তি পাচ্ছে না স্ত্রীরে, ঝাপসা হয়ে আসছে চোখ। বুঝতে পারছে মৃত্যু আসন্ন। শেষ পর্যন্ত কি নিজেদের মুক্ত করতে পেরেছিল শিশির আর লেলিন? নাকি নির্মম পরিণতি বরণ করতে হয়েছিল ভয়ঙ্কর রেড ড্রাগনের হাতে?

Availability: 79 in stock

170.00৳ 

Availability: 79 in stock

Add to cart
Buy Now

Product Description

শিশির বুঝতেই পারেনি যে, রেড ড্রাগন এতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে। রেড ড্রাগনকে ফাঁদে ফেলতে গিয়ে নিজেই আটকা পড়ে গেছে রেড ড্রাগনের ফাঁদে। এখন হাত-পা বেঁধে তাকে ফেলে রাখা হয়েছে গােপন এক কক্ষের মধ্যে। আসলে কক্ষ নয়, বড় একটা কোল্ডস্টোরে। এই স্টোরের মধ্যে শুধু ইলিশ মাছ আর ইলিশ মাছ। ইলিশ মাছ বড় পছন্দের রেড ড্রাগনের। এরই মধ্যে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। এভাবে তাপমাত্রা কমলে একসময় জমে যাবে তার শরীর। তারপর নিশ্চিত মৃত্যু। এমনই চাচ্ছে রেড ড্রাগন। মৃত্যুর পর কী হবে তা আর ভাবতে চাচ্ছে না শিশির। এখন একমাত্র ভরসা লেলিন। লেলিন চেষ্টা করছে তাকে উদ্ধার করতে। কিন্তু যখন দেখল লেলিনও আটক হয়েছে রেড ড্রাগনের হাতে তখন একেবারেই হতাশ হয়ে পড়ল সে। হাত-পা বাঁধা লেলিন তার সামনে এখন। শীতে সে নিজে যেমন কাঁপছে, একইভাবে কাঁপছে লেলিনও। মুক্তির কিংবা পালানাের কোনাে সুযােগ নেই। বাইরে রেড ড্রাগন, সজাগ-সতর্ক। অপেক্ষা করছে তাদের মৃত্যু প্রহরের। এদিকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে আরও দ্রুত। মেঝেতে যে পানি ছিল তাও বরফে পরিণত হয়েছে। একটা হাত অবশ হয়ে আসছে। শক্তি পাচ্ছে না স্ত্রীরে, ঝাপসা হয়ে আসছে চোখ। বুঝতে পারছে মৃত্যু আসন্ন। শেষ পর্যন্ত কি নিজেদের মুক্ত করতে পেরেছিল শিশির আর লেলিন? নাকি নির্মম পরিণতি বরণ করতে হয়েছিল ভয়ঙ্কর রেড ড্রাগনের হাতে?

লিখেছেন

প্রকাশনী

কথাপ্রকাশ

পৃষ্ঠা

142

প্রকাশকাল

1st publisher 2020

আইএসবিএন

9789845101288

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “শিশিলিন কিশোর গোয়েন্দা: রেড ড্রাগন”

Your email address will not be published.